গুগল সার্চ কনসোল: ওয়েবসাইটের যাবতীয় তথ্য পাওয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম

গুগল ওয়েবমাস্টার টুলস এর পরবর্তী নাম হল গুগল সার্চ কনসোল। এটি একটি বেশ জনপ্রিয় এবং ফ্রি প্লাটফ্রম। গুগল কিভাবে আপনার ওয়েবসাইটটি দেখে এবং অপ্টিমাইজ করতে সহায়তা করে তা এই এই প্লাটফর্মের মাধ্যমেই আপনি জানতে পারবেন। এছাড়াও আপনি দেখতে পাবেন আপনার ডোমেইন পারফরমেন্স, মোবাইল পারফরমেন্স কেমন তা, ইম্প্রেশন, ট্রাফিক, ব্যাকলিংক ইত্যাদি। 

গুগল সার্চ কনসোল: ওয়েবসাইটের যাবতীয় তথ্য পাওয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম
গুগল সার্চ কনসোল: ওয়েবসাইটের যাবতীয় তথ্য পাওয়ার সবচেয়ে জনপ্রিয় প্লাটফর্ম

গুগল সার্চ কনসোল (Google Search Console) এর এই অসংখ্য ব্যবহারের মধ্যে এর বিপরীতে এটি ব্যবহার না করার একটি কারণও নেই। একাধারে বিনামূল্যে এবং সর্বাধিক কার্যকরী এসইও টুল হিসেবে এটি বিশ্বের সব এসইও এক্সপার্টদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। সুতরাং আজ এই গুগল সার্চ কনসোল সম্পর্কেই আপনাদের সাথে শেয়ার করবো।


গুগল সার্চ কনসোল (Google Search Console)

যারা এসইও (SEO) নিয়ে ঘাটাঘাটি করেছেন তারা নিশ্চয়ই জেনেছেন গুগল ওয়েবমাস্টার টুলস (Google Webmaster Tools) সম্পর্কে। গুগল ওয়েবমাস্টার টুলস এর পরবর্তী নামই হল গুগল সার্চ কনসোল। আর এই গুগল সার্চ কনসোল সম্পর্কেও সবার বিস্তর ধারণা রাখা উচিত।


বিভিন্ন পেশাদার মার্কেটার, এসইও এক্সপার্ট, ডিজাইনার এবং এ্যাপ ডেভেলপার সকলের কাছে গুগল ওয়েবমাস্টার টুলস (GWT) জনপ্রিয় হওয়ার পর ২০১৫ সালে গুগল এটির নাম পরিবর্তন করে।


গুগল সার্চ কনসোল (Google Search Console) কি?

গুগল সার্চ কনসোলকে গুগলের একটি ফ্রি সার্ভিস বলা হয়। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইট এবং এর ভিজিটরদের সম্পর্কে প্রচুর তথ্য পাবেন। যেমন; কত লোক আপনার সাইটে ভিজিট করছে এবং কীভাবে তারা এটি খুঁজে পেয়েছে এই সবকিছুরই পূর্ণাঙ্গ তথ্য আপনি গুগল সার্চ কনসোল এর মাধ্যমে পেয়ে যাবেন।


অর্থাৎ গুগল সার্চ কনসোল (Google Search Console) হচ্ছে এমন একটি ফ্রি সেবা যা একজন ওয়েবসাইটের মালিক, ডেভেলপার বা কোন এসইও এক্সপার্টকে বুঝতে শেখায় যে তাদের ওয়েবসাইট গুগলে কেমন পারফরমেন্স করছে।


এছাড়াও আপনি এই গুগল সার্চ কনসোল দ্বারা মোবাইল ডিভাইস বা ডেস্কটপ কম্পিউটারে আরও বেশি লোক আপনার সাইটে ভিজিট করছে কি না এবং আপনার সাইটের কোন পেজগুলো সর্বাধিক জনপ্রিয় তা আপনি পরীক্ষা করতে পারেন।


সুতরাং দেখা যাচ্ছে যে গুগল সার্চ কনসোল আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের সমস্যাগুলো খুঁজে বের করতে এবং তা সংশোধন করতে সাহায্য করে। আর এর পাশাপাশি ওয়েবসাইটের সাইটম্যাপ জমা দিতে, একটি রোবটস টেক্সট ফাইল তৈরি করতবে এবং তা চেক করতে সহায়তা করতে পারে।


গুগল সার্চ কনসোল (Google Search Console) এর কাজ

গুগল সার্চ কনসোলের কাজ অনেক বেশি। এর কাজ এতো বেশি যে আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট থাকে, তাহলে আপনি গুগল সার্চ কনসোলের প্রয়োজনীয়তা কখনোই অস্বীকার করতে পারবেন না। একটি ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টে সবার আগে দেখার জন্য এসইও অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।


আর গুগল সার্চ কনসোল আপনাকে এই এসইও বুঝতে সাহায্য করে। অর্থাৎ আপনার এসইও সঠিক পথে এগোচ্ছে কি না তা আপনি এই গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে জানতে পারবেন।


অনেক নতুন নতুন ওয়েবসাইট এর আছেন যারা বুঝতেই পারে না তাদের ওয়েবসাইটটির উন্নতি হচ্ছে নাকি অবনতি হচ্ছে। সেক্ষেত্রে তারা এই গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে জানতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইটের উন্নতি হচ্ছে নাকি এবং অবনতি হচ্ছে। খুঁজে বের করতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট এর সমস্যাগুলো।


একই সাথে আপনার ওয়েবসাইটের Keyword গুলো গুগলে কত নম্বর পজিশনে আছে, সেটিও দেখতে পারবেন। আপনার ওয়েবসাইটের উন্নতি এবং অবনতি একটি গ্রাফের মাধ্যমে গুগল আপনার সামনে খুব সুন্দর এবং কার্যকরীভাবে উপস্থাপন করে থাকে এই গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে।


এগুলোর বাইরেও আরও অনেক কাজ আছে যা আপনি গুগল সার্চ কনসোল ব্যবহারের মাধ্যমে পেতে পারেন।


গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে কি কি হয় তার কিছু উদাহরণ জেনে আসা যাক

১. URL পরিদর্শন 

আপনার যে ওয়েবসাইট আছে সেই ওয়েবসাইটের পেজগুলো গুগলে ইনডেক্স কিনা তা আপনি ইউআরএল পরিদর্শনের (URL Inspect) মাধ্যমে জানতে পারবেন।


২. সাইটম্যাপ (Sitemap)

আপনার ওয়েবসাইটকে পূর্ণাঙ্গ ক্রল করতে আপনি গুগলের কাছে একটি সাইটম্যাপ সাবমিট করতে পারবেন।


৩. রিমুভ করা

আপনার ওয়েবসাইটের অপ্রয়োজনীয় কোনো কিছু যদি না রাখতে চান বা গুগল সার্চে না দেখাতে চান তবে সেটি রিমুভ করতে পারবেন।


৪. মোবাইল ব্যবহারযোগ্যতা (Mobile Usability)

আপনার ওয়েবসাইটটি মোবাইল দিয়ে ভিজিট করার সময়ে ভিজিটরদের কোনো সমস্যা হচ্ছে কি না বা তারা কেমন অভিজ্ঞতা অনুভব করছে সেই সকল তথ্য জানতে পারবেন।


৫. ব্যাকলিংক

আপনার ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংগুলো পরীক্ষা করতে পারবেন এই গুগল সার্চ কনসোলের মাধ্যমে।


কীভাবে গুগল সার্চ কনসোল ব্যবহার করবেন?

গুগল সার্চ কনসোল ব্যবহার করা খুব কঠিন বিষয় নয়। আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য খুব সহজেই এই গুগল সার্চ কনসোল ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য প্রথমেই আপনাকে গুগল সার্চ কনসোলের সাইটে গিয়ে স্টার্ট নাও (Start now) অপশনে গিয়ে ক্লিক করতে হবে।


এরপর আপনি দেখবেন যে, আপনাকে এ্যাড প্রপার্টি (Ad property) পেজে যুক্ত করা হবে। সেখানে আপনার ওয়েবসাইটের যে ডোমেইনটি আছে তা যুক্ত করতে হবে। অর্থাৎ এ্যাড প্রপার্টি (Ad property) অপশনে ক্লিক করলে সেখানে একটি পপ-আপ উইন্ডো চলে আসবে।


আর সেখানেই অর্থাৎ URL prefix বক্সে আপনার ওয়েবসাইটের সম্পূর্ণ লিংকটি বসিয়ে দিতে হবে। তারপরে Continue লেখা অপশনে ক্লিক করতে হবে।


আর এই Continue বাটনে ক্লিক করলে আপনি দেখতে পাবেন Verify ownership নামের একটি অপশন। এখানে ওয়েবসাইটটি যে আপনারই সেটা গুগলের কাছে প্রমাণ করতে হবে। সেজন্য গুগল থেকে আপনাকে একটি HTML ফাইল দেবে। আপনাকে তখন সেই HTML ফাইলটি ডাউনলোড করে আপনার cPanel এ আপলোড দিতে হবে।


তবে মনে রাখবেন cPanel এর যে Directory তে আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইনটি রয়েছে অবশ্যই সেই একই Directory তেই HTML ফাইলটি আপলোড করতে হবে। ফাইলটি সেখানে আপলোড করার পর আপনাকে VERIFY লেখা অপশনে ক্লিক করতে হবে। আর এরপরই আপনার ওয়েবসাইটটি গুগলের সার্চ কনসোলে সাবমিট করা হয়ে যাবে।


কিছু বিষয় মনে রাখবেন

১. HTML ফাইলটি আপলোডের পর এটি কখনোই cPanel থেকে রিমুভ করবেন না। কারণ এটি রিমুভ করে দিলে তাৎক্ষণিকভাবে গুগল আপনার ওয়েবসাইট ক্রল করা বন্ধ করে দেবে।


২. গুগল সার্চ কনসোলে আপনার ওয়েবসাইটটি সাবমিট করার পর থেকে গুগল আপনার ওয়েবসাইটটি ক্রল করা শুরু করবে। এবং ওয়েবসাইটের কনটেন্টগুলো Index করতে শুরু করবে। গুগল আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্টগুলো Index করার পর তারা আপনাকে একটি মেইল দিবে। এর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন যে, আপনার ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনে প্রদর্শনের জন্য প্রস্তুত।


আজ এই পর্যন্তই। আবারও নতুন কোনো বিষয় নিয়ে হাজির হবো সেই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ।


আরও পড়ুনঃ গুগল অ্যানালিটিক্স কি? এর কাজ এবং সুবিধা ও অসুবিধা সম্পর্কে জানুন